ব্রেকিং নিউজ :
January 12, 2017

ভারতে বিএসএফ-এর পর সিআরপিএফ সদস্যের বিস্ফোরক ভিডিও !

ভারতে বিএসএফ সদস্য তেজ বাহাদুর যাদব বিএসএফ-এর দুর্নীতির প্রশ্ন সামনে নিয়ে এসেছিলেন। ফেইসবুকের ভিডিও বার্তায় তিনি নিজ দেশবাসীর সামনে জানান দেন, দিনের পর দিন দেশরক্ষা করে কী তারা অখাদ্য-কুখাদ্য খেয়ে জীবন ধারণ করেন।  তেজ বাহাদুরের ভিডিও নিয়ে দেশটিতে তোলপাড় শুরু হয়। নড়েচড়ে বসে প্রশাসন। স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী রাজনাথ সিং নির্দেশ দিয়েছেন তদন্তের।

এরপরেই আর একটি ভিডিও সামনে এসেছে। এবার জিৎ সিংহ নামে সিআরপিএফ এক জওয়ান, প্রধানমন্ত্রীর উদ্দেশে তাঁর বার্তা পাঠিয়েছেন ফেইসবুক ভিডিও-র মাধ্যমে। জিৎ প্রধানমন্ত্রীর কাছে আবেদন জানিয়েছেন, তারা এত কঠিন পরিস্থিতির মধ্যে কাজ করেন, দেশের সব প্রান্তে তাদের ডিউটি করতে হয়। অথচ তারা যথেষ্ট ছুটি পান না। তাদের সঙ্গে সেনাবাহিনীর সুযোগ-সুবিধার ফারাক কেন সেই প্রসঙ্গও তুলেছেন তিনি।

জিৎ সিংহ যা বলেছেন তার ভিডিও-তে:

আমি আপনাদের মাধ্যমে দেশের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদীর কাছে একটা বার্তা পৌঁছতে চাই। আমার বিশ্বাস আপনারা আমাকে পুরো সহ‌যোগিতা করবেন। দেশের এমন কোনও ডিউটি নেই, যা আমরা সিআরপি জওয়ানরা করি না। গ্রাম পঞ্চায়েতের মতো ছোট নির্বাচন থেকে শুরু করে লোকসভা নির্বাচনেও আমরা ডিউটি করি। এর সঙ্গে ভিআইপি নিরাপত্তা, সংসদের নিরাপত্তা, মন্দির-মসজিদ-গুরুদ্বার— সব কিছুর নিরাপত্তা সামলায় সিআরপি জওয়ানরা। এত কিছু করেও আধাসেনা ও সেনাবাহিনীর সুযোগ-সুবিধার মধ্যে এত ফারাক যে আপনারা শুনলে অবাক হয়ে যাবেন।

আমি প্রধানমন্ত্রীর কাছে বলতে চাই, আমাদের দেশে কত সরকারি স্কুল ও কলেজ আছে, সেখানকার শিক্ষকদের আপনারা মাসে ৫০ থেকে ৬০ হাজার টাকার মাইনে দেন। বছরে না জানি কত দিন এবং প্রত্যেক উৎসবে ওনারা বাড়িতে ছুটি কাটাতে পারেন। আমরা কেউ ঝাড়খণ্ডের জঙ্গলে, কেউ জম্মু-কাশ্মীরের পাহাড়ে পড়ে থাকি। আমাদের সময়ে ছুটি মেলে না। আমাদের দুঃখ বোঝার মতো কেউ নেই বন্ধুরা। এত ডিউটি করার পরেও আমাদের এই সামান্য অধিকারটুকু নেই!

সেনাবাহিনীর পেনশনও আছে। আমাদের পেনশন ছিল। কিন্তু বন্ধ হয়ে গেছে। ২০ বছর বাদে যখন আমরা চাকরি ছেড়ে যাব, তখন কী করব? এক্স-সার্ভিসমেন-এর কোটা আমাদের নেই, ক্যান্টিনের সুবিধা আমাদের নেই, মে়ডিক্যালের সুবিধা আমাদের নেই। কাজ আমাদের সবচেয়ে বেশি। সেনাবাহিনী যা সুবিধা পায়, সে নিয়ে আমাদের কোনও অভিযোগ নেই। তাদের পাওয়া উচিত। কিন্তু আমাদের সঙ্গে এই বিভাজন কেন? আমাদেরও তো পাওয়া উচিত। যদি আপনারা আমার এই বক্তব্যের সঙ্গে একমত হন, তবে আমার এই ভিডিও আরও ছড়িয়ে দিন।

সিআরপিএফ জওয়ান জিৎ সিংহের বক্তব্য নিয়ে এখনও পর্যন্ত কোনও সরকারি প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

সূত্র এবেলা

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ bangladesh24online.news@gmail.com

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।