ব্রেকিং নিউজ :
July 2, 2017

স্বপ্ন বিবর্ণ হচ্ছে সড়কে, ছয় মাসে নিহত ২২৯৭

সড়ক ও মহাসড়ক। প্রতিদিন নিভে যাচ্ছে আবাল, বৃদ্ধ, বণিতার জীবনপ্রদীপ। বিবর্ণ হচ্ছে সোনালী স্বপ্ন; ভবিষ্যত। কতিপয় ব্যক্তির খামখেয়ালিপনার মাশুল গুনছে শত শত পরিবার। দীর্ঘ থেকে দীর্ঘতর হচ্ছে দীর্ঘশ্বাসের মিছিল।

চলতি বছরের প্রথম ছয় মাসে এক হাজার ৯৮৩টি সড়ক দুর্ঘটনায় দুই হাজার ২৯৭ জন নিহত ও পাঁচ হাজার ৪৮০ জন আহত হয়েছেন। গত বছরের তুলনায় চলতি বছর এসময়ে সড়ক দুর্ঘটনা ও হতাহতের সংখ্যা বেড়েছে। ২০১৬ সালের জানুয়ারি থেকে জুন পর্যন্ত সড়কে এক হাজার ৯৪১ জন নিহত এবং চার হাজার ৭৯৪ জন আহত হন। ১ জানুয়ারি থেকে ৩০ জুন পর্যন্ত সারা দেশে বিভিন্ন মহাসড়ক, জাতীয় সড়ক, আন্ত:জেলা সড়ক ও আঞ্চলিক সড়কে এসব প্রাণঘাতি দুর্ঘটনা ঘটে।

শনিবার বেসরকারি সংগঠন নৌ, সড়ক ও রেলপথ রক্ষা জাতীয় কমিটির নিয়মিত জরিপ ও পর্যবেক্ষণ প্রতিবেদনে এই তথ্য তুলে ধরা হয়। ২২টি জাতীয় দৈনিক, ১০টি আঞ্চলিক সংবাদপত্র এবং আটটি অনলাইন নিউজপোর্টাল ও সংবাদ সংস্থার তথ্য-উপাত্তের ভিত্তিতে এই প্রতিবেদন তৈরি করা হয়েছে বলে সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক আশীষ কুমার দে এক সংবাদ বিজ্ঞপ্তিতে জানান।

এছাড়া জানা যায়, ৭০ভাগ দুর্ঘটনার জন্য দায়ী চালক। বেশির ভাগ দুর্ঘটনাই ঘটছে মুখোমুখি। আইনের সুষ্ঠ প্রয়োগ না থাকায় ক্রমশঃ বেড়েই চলছে এই দুর্ঘটনা। আর বেপরোয়া হয়ে উঠছে চালকরা। মহাসড়ক, জেলা ও আঞ্চলিক সড়ক মিলিয়ে দেশে ২১ হাজার ৪৮১ দশমিক ২৬ কিলোমিটার সড়কপথ রয়েছে। এরমধ্যে জাতীয় সড়ক আছে তিন হাজার ৫৪৪ কিলোমিটার। আঞ্চলিক সড়ক চার হাজার ২৭৮ কিলোমিটার। জেলা সড়ক আছে ১৩ হাজার ৬৫৯ কিলোমিটার। এসব সড়কে অবাধে চলছে ফিটনেসহীন যানবাহন। অদক্ষ চালকরা এগুলো চালাচ্ছে। চালকদের বেশির ভাগই মাদক সেবন করে। ফলে হরহামেশাই ঘটছে দুর্ঘটনা। দুর্ঘটনার পর পরই চালক ও তার সহযোগী কৌশলে পালিয়ে যাচ্ছে। পুলিশের গাফিলতির কারণে তাদেরকে বিচারের মুখোমুখি করা যাচ্ছে না। এসব ঘটনার মামলা ঝুলছে বছরের পর বছর। তাছাড়া পুলিশকে ‘খুশি’ করে মালিকরা ছাড়িয়ে নিচ্ছে জব্দ করা বাহনটি। ফলে কমানো যাচ্ছে না সড়ক দুর্ঘটনা।

বিশেষজ্ঞরা বলছেন, দুর্ঘটনা কমানোর জন্য সড়ক নিরাপত্তা নিশ্চিত করতে হবে। মহাসড়কের মাঝখানে দিতে হবে রোড ডিভাইডার। এতে মুখোমুখি সংঘর্ষ বন্ধ হবে। পরীক্ষা ছাড়া চালককে লাইসেন্স দেয়া যাবে না। বন্ধ করতে হবে অনুমোদনহীন পরিবহন। এজন্য সংশ্লিষ্ট মন্ত্রণালয়ের কার্যকর হস্তক্ষেপ দরকার।

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ bangladesh24online.news@gmail.com

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।