ব্রেকিং নিউজ :
July 16, 2017

চিকুনগুনিয়া ঠেকাতে ছাড়া হচ্ছে দুই কোটি ইজিপ্টি মশা!

যুক্তরাষ্ট্রের ক্যালিফোর্নিয়ার ফ্রেসনো এলাকায় বিশেষ ব্যাকটেরিয়াযুক্ত দুই কোটি পুরুষ মশা ছাড়বে একটি শীর্ষ প্রযুক্তি প্রতিষ্ঠান। এ ক্ষেত্রে এডিস ইজিপ্টি মশাকে বেছে নেয়া হয়েছে। তিনশ’ একরের দুটি এলাকায় প্রতি সপ্তাহে ১০ লাখ করে ২০ সপ্তাহ ধরে মশা ছাড়া হবে। ১৪ই জুলাই শুক্রবার এ বিষয়ে প্রচারণা শুরু হয়েছে। এই প্রচারণা মার্কিন প্রযুক্তি জায়ান্ট অ্যালফাবেটের ভেরাইলি লাইফ সায়েন্সেস বিভাগের একটি পরিকল্পনার অংশ। তবে মশাগুলো মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়। একটি স্বাস্থ্যপ্রযুক্তি প্রকল্পের আওতায় বাস্তবায়ন করা হচ্ছে। ব্লুমবার্গ।

এডিস ইজিপ্টি বিশেষায়িত এই পুরুষ মশাগুলোর শরীরে একটি ব্যাকটেরিয়া যুক্ত করে দেওয়া হয়েছে। এ মশা জিকা, ডেঙ্গু ও চিকুনগুনিয়ার ভাইরাস বহন করে। তবে এই মশাগুলো মানুষের জন্য ক্ষতিকর নয়। এগুলো বন্য স্ত্রী মশার সঙ্গে প্রজননের পর বংশবিস্তারে সক্ষম নয় এমন ডিম সৃষ্টি করবে। এর মাধ্যমে মশার সংখ্যা ও এগুলোর মাধ্যমে রোগের সংক্রমণও কমবে বলে আশা করা হচ্ছে, বলা হয়েছে ব্লুমবার্গ-এর প্রতিবেদনে।

ভেরাইলি লাইফ ২০১৫ সালে অ্যালফাবেট-এর একটি একক বিভাগে পরিণত হয়। এরপর বিভাগটি কয়েকটি স্বাস্থ্য প্রযুক্তি প্রকল্প হাতে নিয়েছে। এই ডিবাগ নামের মশা প্রকল্প থেকে এখনই কোনো আয় হবে না। এই প্রকল্প হচ্ছে স্বাস্থ্য প্রযুক্তি খাতে নিজেদের কারিগরি সক্ষমতা প্রদর্শনে প্রতিষ্ঠানটির একটি সুযোগ, বলা হয় প্রতিবেদনটিতে।

ভেরাইলি’র প্রধান প্রকৌশল কর্মকর্তা লিনাস আপসন ডিবাগ প্রকল্পের নেতৃত্ব দিচ্ছেন। তিনি বলেন, “আমরা যদি দেখাতে পারি যে এই কৌশল কাজ করছে, আমার বিশ্বাস আমরা এটিকে একটি টেকসই ব্যবসায় পরিণত করতে পারব। কারণ এই মশার বোঝাটা বিশাল।”

ভেরাইলি মশাগুলোর জীনগত কোনো পরিবর্তন আনেনি। এগুলো ওলব্যাকিয়া নামের প্রাকৃতিকভাবে সৃষ্ট একটি ব্যাকটেরিয়ায় আক্রান্ত। এই আক্রান্ত পুরুষ মশাগুলো যখন বন্য স্ত্রী মশার সঙ্গে মিলিত হবে, তারা বাচ্চা জন্মদানে অক্ষম ডিম সৃষ্টি করবে। এর ফলে সময়ের সঙ্গে মশার সংখ্যা কমে আসবে। এক্ষেত্রে বাড়তি সুবিধা হচ্ছে পুরুষ মশা মানুষকে কামড়ায় না। এর ফলে ফ্রেসনো’র অধিবাসীদের মশার কামড় খাওয়া এই গ্রীষ্মে অন্যান্য সময়ের তুলনায় কমে যাবে বলে আশা করা হচ্ছে।

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ [email protected]

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।