ব্রেকিং নিউজ :
September 2, 2017

কুঁড়েঘর থেকে রাজপ্রাসাদে এই ক্রিকেটার!

ভারতের আইপিএল’এ অতি পরিচিত মুখ পেসার ২১ বছরের পেশার নাথু সিংহ। এই ক্রিকেটারের পিতা ভারত সিংহ ছিলেন সামান্য বেতনের কর্মচারি। তার মাসিক আয় ছিল মাত্র ৬০০০ টাকা। দিনমজুরের কাজ করতেন তিনি। স্বল্প বেতনে সংসার চালাতেই হিমশিম খেতেন। পুরো পরিবার নিয়ে থাকতেন এক কুঁড়েঘরে।

তবে আইপিএল’এ ভাগ্য পরিবর্তন হয়েছে সেই নাথু সিংহের। এখন তিনি কোটিপতি। দিনমজুর বাবাকে রাজসিক এক উপহার দিচ্ছেন মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের এই তারকা পেসার। আড়াইশো বর্গ মিটার জমির উপরে বাবাকে তৈরি করে দিচ্ছেন বিলাসবহুল এক বাড়ি। যার দাম প্রায় দেড় কোটি।

ছেলেবেলায় নাথুর খেলা দেখে এক প্রতিবেশি তার বাবাকে পরামর্শ দেন, ছেলেকে অ্যাকাডেমিতে দাও। সেই কথামতোই ছেলেকে জয়পুরের ক্রিকেট অ্যাকাডেমিতে পাঠান ভারত। নাথুর প্রতিভা চোখে পড়ে রাহুল দ্রাবিড়ের। রাজস্থানের হয়ে রনজিৎ ট্রফি খেলা নাথু এখন ক্রিকেট খেলেই উপার্জন করছেন প্রচুর টাকা।

তবে চলতি বছরের আইপিএলের দশম আসর বদলে দেয় নাথু সিংহের দুনিয়াটা।  গুজরাট লায়ন্সের হয়ে খেলা পেসার নাথুকে তিন কোটি ২০ লক্ষ রুপিতে কিনে নেয় মুম্বাই ইন্ডিয়ান্স।

কুঁড়েঘরে বড় হওয়া সেই নাথু সিংহ এখন দেড় কোটি রুপির বাড়ি বানাচ্ছেন জয়পুরে। মাস ছয়েকের মধ্যে নতুন বাড়িতে চলে যাবেন নাথুরা। ছেলের কাছ থেকে এমন উপহার পেয়ে আবেগে আপ্লুত পিতা ভারত সিংহও। তিনি স্থানীয় সংবাদমাধ্যমে বলেছেন ‘ছেলে কঠোর পরিশ্রম করত। পরিশ্রমে কোনও ফাঁক রাখেনি। তাই আজ ছেলে তারকা ক্রিকেটার হতে পেরেছে। আমি গর্বিত’।

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ bangladesh24online.news@gmail.com

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।