ব্রেকিং নিউজ :
January 10, 2016

দিতির চিকিৎসায় প্রধানমন্ত্রীর ১০ লাখ টাকা

c236d2e5eb3572d4df39b2e5db03c0e7-106চিত্রনায়িকা পারভিন সুলতানা দিতির চিকিৎসার জন্য ১০ লাখ টাকা দিয়েছেন প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা।  আজ রোববার বিকেলে গণভবনে দিতির মেয়ে লামিয়া চৌধুরী ও ছেলে শাফায়াত চৌধুরী দীপ্তর হাতে ১০ লাখ টাকার চেক তুলে দেন তিনি।

এ সময় প্রধানমন্ত্রী দিতির দুই সন্তানের কাছে তাঁদের মায়ের স্বাস্থ্যের সর্বশেষ অবস্থার খোঁজ-খবর নেন।  পরে প্রধানমন্ত্রীর প্রেস সচিব ইহসানুল করিম সাংবাদিকদের জানান, লামিয়া ও দীপ্তর কাছে তাদের মায়ের স্বাস্থ্যের সর্বশেষ অবস্থা সম্পর্কে খোঁজ-খবর নেন শেখ হাসিনা।

দিতির মস্তিস্কে টিউমার অপসারণে গত জুলাইয়ের শেষ দিকে ভারতের মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অফ অর্থোপেডিকস অ্যান্ড ট্রমাটোলজি হাসপাতালে অস্ত্রোপচার হয়।

এর কিছুদিন পরেই আবার অসুস্থ হয়ে পড়ায় তাকে ভারতে নিয়ে যাওয়া হয়। সেখানে কেমোথেরাপি দেওয়ার পর দিতির যন্ত্রণা আরো বেড়ে যায়।গত শুক্রবার দুপুরে ভারত থেকে দেশে ফিরেই হাসপাতালে ভর্তি হন এই চিত্রনায়িকা।

টিউমার অপারেশনের জন্য গত বছরের ২৯ জুলাই চেন্নাইয়ে মাদ্রাজ ইনস্টিটিউট অব অর্থোপেডিকস অ্যান্ড ট্রমাটোলজিতে (এমআইওটি) দিতির মস্তিষ্কে অস্ত্রোপচার করা হয়। ২০ সেপ্টেম্বর দেশে ফিরে আসেন তিনি। চেন্নাই থেকে ফিরে আসার পর বাসায় ছিলেন দিতি। অসুস্থতা বেড়ে যাওয়ায় ৩০ অক্টোবর তাঁকে রাজধানীর স্কয়ার হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। ঢাকায় ফিরে বেশ কিছুদিন সুস্থ ছিলেন। এরপর মস্তিষ্কে পানি জমায় আবার অসুস্থ হয়ে পড়েন তিনি। দ্রুত দিতিকে দ্বিতীয়বার চেন্নাইয়ে নেওয়া হয়। ৩ নভেম্বর আবারও তাঁর মস্তিষ্কে সফল অস্ত্রোপচার হয়। গত শুক্রবার ভারত থেকে দেশে ফিরে আবারও হাসপাতালে ভর্তি হন এই অভিনেত্রী।

প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে দিতির ছেলে ও মেয়ের সাক্ষাতের সময় সংস্কৃতিমন্ত্রী আসাদুজ্জামান নূর উপস্থিত ছিলেন।

এদিন আরেক অভিনেত্রী রাণী সরকারকেও আর্থিক সহায়তা দেন প্রধানমন্ত্রী। গণভবন থেকে দুই বস্তা চাল, মাছ ও সবজিও তার বাসায় পাঠানো হয়।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/আরআই/এসএ

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ [email protected]

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।