ব্রেকিং নিউজ :
July 18, 2016

খুতবা লিখে দিয়ে তা পড়তে বাধ্য করা সুষ্ঠু চিন্তা নয়ঃ হেফাজতে ইসলাম

দেশ ও জনগণের স্বার্থে সরকার চাইলে মসজিদের খতিবগণকে সুনির্দিষ্ট বিষয়ে ইসলামের আলোকে বয়ান উপস্থাপনের জন্যে অনুরোধ করতে পারেন। কিন্তু খুতবা লিখে দিয়ে তা পড়তে বাধ্য করা সুষ্ঠু চিন্তা নয়। জুমার নামাযে ইসলামিক ফাউন্ডেশনের নির্দিষ্ট করে দেয়া খুতবাকে ধর্মীয় বিষয়ে অবৈধ হস্তক্ষেপ আখ্যায়িত করে তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে হেফাজতে ইসলাম বাংলাদেশ । রোববার হেফাজত আমীরের প্রেস সচিব মাওলানা মুনির আহমদ স্বাক্ষরিত এক বিজ্ঞপ্তিতে এ তথ্য জানানো হয়। চট্টগ্রামের দারুল উলূম হাটহাজারী মাদরাসায় অনুষ্ঠিত সংগঠনটির কেন্দ্রীয় নেতাদের এক বৈঠকে সংগঠনের আমীর শাহ আহমদ শফী সভাপতিত্ব করেন।

 হেফাজত আমীরের প্রেস সচিব জানান, এক সময় তারা নামাযের সূরা-ক্বিরাতেও বিধি-নিষেধ আরোপ করতে চাইবে। নামায ইসলামের মৌলিক ইবাদত। ইসলামের ইবাদত-বন্দেগীকে দলীয়করণ ও সরকারিকরণ করা যায় না। দেশের সকল মুসলিম জনতা ইবাদত-বন্দেগীতে সরকারের এ অন্যায় হস্তক্ষেপ কখনোই বরদাস্ত করবে না। ইসলামিক ফাউন্ডেশন কর্তৃক দেশের জামে মসজিদসমূহে প্রেরিত খুতবাকে বিতর্কিত ও ভুলে ভরা ।

হেফাজত নেতারা বলেন, পবিত্র জুমার খুতবা ওয়াজিব ইবাদত। খুতবার আগে কোনো কোনো মসজিদে কুরআন-হাদিসের আলোকে খতিবগণ অত্যন্ত বিনয়ের সঙ্গে মুসল্লিগণের উদ্দেশ্যে পারিবারিক ও সামাজিক জীবনে শৃঙ্খলা মতে চলা, অপরাধমূলক কাজ থেকে বিরত থাকা, ইসলামের বিধি-বিধান সঠিকভাবে পালনের নিয়ম-কানুন নিয়ে বয়ান রাখেন। খতিব সাহেবগণ খুতবার আগে বয়ান প্রকাশ্যেই দিয়ে থাকেন। যা সকল মুসল্লিরা শুনে থাকেন। আর মুসল্লিদের মধ্যে সরকারি-বেসরকারি নানা শ্রেণীর কর্মকর্তা-কর্মচারীসহ সকল দলমতের মানুষ থাকেন।  সুতরাং খতিব সাহেবদের কোনো বিভ্রান্তিমূলক বয়ান পেশের সুযোগই নেই।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/এসএম

 

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ [email protected]

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।