ব্রেকিং নিউজ :
August 9, 2015

ধারবাহিক সাফল্যের ছন্দপতন কেন?

resize_1379741574এইচএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হয়েছে। এবার ধারাবাহিক সাফল্যের ছন্দপতন ঘটেছে। গড় পাশের ক্ষেত্রে তো বটেই, জিপিএ-৫এর সংখ্যাও কমেছে। কমেছে শতভাগ পাশ করা কলেজের সংখ্যা। বিষয়টি রীতিমতোর হতাশার। পাশের হার কমে যাওয়ার বিষয়ে সরকার প্রধান ও শিক্ষামন্ত্রী একটা যুক্তি দাঁড় করিয়েছেন। তাঁরা এজন্য পরীক্ষা চলাকালে হরতাল-অবরোধকে দায়ী করছেন। এই যুক্তি ‘কথা দিয়ে ছেলে ভোলানো’ ছাড়া কি হতে পারে? কারণ, হরতাল-অবরোধ পরীক্ষার্থীদের বাড়ি-কেন্দ্র পযন্ত মাঝখানের পথে প্রতিবন্ধকতা সৃষ্টি করেছে। পরীক্ষার হলে আর পরীক্ষার প্রস্তুতিতে এর প্রভাব কতটুকু- বোধগম্য নয়। তবে এটা অস্বীকার করার উপায় নেই যে, হরতাল-অবরোধের কারণে পরীক্ষার্থীদের মধ্যে এই উৎকন্ঠা ছিল- যথাসময়ে পরীক্ষা অনুষ্ঠিত হবে কি না। সরকার প্রধান ও শিক্ষামন্ত্রীর যুক্তি যদি য়ৌক্তিকই হয়, তাহলে শিক্ষার্থীদের বিষয়টি মাথায় রেখে হরতাল-অবরোধের মধ্যে পরীক্ষা নেওয়া হলো কেন? রাজনীতির গোয়াড়তুর্মির শিকার সাধারণ শিক্ষার্থীরা কেন হবে, কতদিন হবে? অকৃতকার্য শিক্ষার্থীদের একটি বছরের দায়ভার কে নেবে?

গেলবারে ‘ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়’ এ ইংরেজি বিভাগে ভর্তির জন্য বিশ হাজারের বেশি শিক্ষার্থী ভর্তি পরীক্ষায় অংশ নেয়। এতে মাত্র তিনজন পাশ করে। বিষয়টি নিয়ে গোটা দেশে তোলপাড় শুরু হয়। প্রশ্নবিদ্ধ হয়ে পড়ে পাশের হার। অনেকেই প্রশ্ন তোলেন- পাশ করার জন্য মেধা লাগে না, পরীক্ষা দিলেই সার্টিফিকেট মেলে। এনিয়ে বিব্রতকর পরিস্থিতিতে পড়েন শিক্ষামন্ত্রী।পাশের হারের পক্ষে অবস্থান নেন শিক্ষামন্ত্রী। ক্রুটিযুক্ত দাবি করে তিনি ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ভর্তি পরীক্ষা পদ্ধতি বাতিলের দাবি জানান। বিব্রতকর ওই ঘটনার সঙ্গে ফলাফল ছন্দপতনের কোন যোগসুত্র নেই তো?

ছেলের অন্যায়ের দায়ভার বাবা নিলে সালিশে বিচার করার কিছু থাকে কি? উচিত হবে ফলাফলের এই বিপর্যয়ের কারণ খতিয়ে দেখা। সংশ্লিষ্ট শিক্ষাপ্রতিষ্ঠানের শিক্ষকদের গাফিলতি থাকলে তা খুজে বের করা। কেন শত ভাগ পাশ করা কলেজের সংখ্যা কমলো, সেই বিষয়টি খতিয়ে দেখা এবং যথাযথ ব্যবস্থা নেওয়া। সরকারকে এটা ভূলে গেলে চলবে না- শিক্ষা জাতির মেরুদন্ড। তাই ফলাফল বিপর্যয়কে সহজ করে দেখার কোন সুযোগ নেই। ভাল হবে আগের ফলাফলের ধারাবাহিকতা বজায় রাখার জন্য প্রয়োজনীয় ও কার্যকর পদক্ষেপ নেওয়া। সরকার এই পদক্ষেপ নিতে কালক্ষেপণ করবে না- এটাই প্রতাশ্য।

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ bangladesh24online.news@gmail.com

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।