ব্রেকিং নিউজ :
August 12, 2016

আইএস ছাড়া হল না ব্রিটিশ তরুণী খাদিজা সুলতানার!

3খাদিজা সুলতানা নামের এক ব্রিটস নাগরিক ব্রিটেন থেকে সিরিয়া পালিয়ে গিয়ে ইসলামিক স্টেট (আইএস)-এ যোগ দেয়। কয়েক সপ্তাহ আগেই নিহত ১৭ বছর বয়সী এই তরুণী। তবে নিহত হওয়ার আগে খাদিজা জঙ্গি সংগঠনটি ছাড়তে চেয়েছিল বলে দাবি করেছে তার পরিবার এবং তার পারিবারিক আইনজীবী।

পূর্ব লন্ডনের বেথনাল গ্রিন স্কুলের শিক্ষার্থী ছিলেন খাদিজা। স্কুলের ছুটি চলাকালীন সময় গত বছরের ফেব্রুয়ারিতে যুক্তরাজ্য থেকে সিরিয়ায় পালিয়ে যায় এই তরুণী। তার সাথে তার আরও দুই বন্ধুও সিরিয়া পালিয়ে গিয়েছিলো। তারা হলেন শামীমা বেগম ও আমীরা আব্বাসি। তাদের বয়স ছিল ১৫ বছর।3.5

আন্তর্জাতিক সংবাদমাধ্যম দ্য গার্ডিয়ানের এক প্রতিবেদন থেকে ধারনা করা হচ্ছে, খাদিজা আইএস-এর কবল থেকে মুক্ত হওয়ার আগেই মারা গিয়েছিল। কারন সে যে স্থানে অবস্থান করছিল, চলতি বছরের মে মাসে মার্কিন যৌথ বাহিনী সেখানে বিমান হামলা চালিয়েছে। খাদিজা সম্পর্কে আরও জানা যায় মৃত্যুর আগে সোমালিয় বংশোদ্ভূত এক মার্কিন নাগরিকের সঙ্গে খাদিজার বিয়ে হয়েছিল। বিমান হামলায় তার স্বামীও নিহত হয়। তবে ব্রিটিশ পররাষ্ট্র দফতর খাদিজার মৃত্যুর বিষয়টি এখনও নিশ্চিত করেনি।

খাদিজার পারিবারিক আইনজীবী তাসনিম আকুঞ্জি আন্তর্জাতিক গণমাধ্যম বিবিসি’র নিউজ নাইট অনুষ্ঠানে খাদিজা সম্পর্কে বলেন, “নিহত হবার আগে খাজিদা আইএস ছাড়তে চেয়েছিল। কয়েক সপ্তাহ আগেই রাক্কা এলাকায় খাদিজার নিহত হওয়ার খবর পেয়েছেন তারা। তবে নিরপেক্ষভাবে তার মৃত্যুর খবর যাচাই করা সম্ভব হয়নি”।

তিনি আরও বলেন, “খাদিজার মৃত্যুর খবরে তার পরিবার একেবারে ভেঙ্গে পড়েছে। পরিবারের একজন সদস্যের মৃত্যূর খবরের চেয়ে খারাপ খবর আর কি হতে পারে, তবে খাদিজা যে একজন উজ্জ্বল সম্ভাবনাময় তরুণী ছিল, এতে কোনও সন্দেহ নেই। খাদিজার এই করুণ পরিণতি হবে আমরা এটা জানতাম, তাকে ফেরানোর সর্বোচ্চ চেষ্টা আমরা করেছি, কিন্তু দুর্ভাগ্য আমাদের, আমরা এই কিশোরীর জীবন বাঁচাতে পারলাম না”।

আকুঞ্জি বলেন, খাদিজার আইএস ত্যাগের চেষ্টা অন্যদের জন্য ইতিবাচক হতে পারে। যারা এখনও এইএস এ যোগ দিতে আগ্রহী এই ঘটনা থেকে সিরিয়ার  যুদ্ধ এলাকা সম্পর্কে তারা একটা ধারণা হয়ে যাবে। যা থেকে তারা নিজেদের সিদ্ধান্ত নিতে পারেন।

খাদিজা মৃত্যুর আগে ফোনে তার বোন হালিমার সঙ্গে কথা বলেছিল। সেই ফোন আলাপে খাদিজা বলেছিল, “আমার ভালো লাগছে না, আমি ভয় পাচ্ছি। হয়তো আপনাদের সঙ্গে আর দেখা হবে না”। হালিমা তাকে সাহস যুগিয়ে বলেছিল, “আমি তোমার অবস্থা বুঝতে পারছি। ভয় পেও না। আমাদের ওপর বিশ্বাস রাখো”। খাদিজা আরও বলেছিল, “এখন সীমান্ত বন্ধ, আমি কিভাবে এখান থেকে বের হবো? আমি কুর্দি বাহিনীর অঞ্চল দিয়ে বাইরে আসতে পারবো না”। হালিমা তাকে জিজ্ঞেস করেছিলেন, “তুমি বেরিয়ে আসার ব্যাপারে কতোটা আত্মবিশাসী”?  জবাবে খাদিজা বলে, “শূন্য… মা কোথায়? আমি মায়ের সঙ্গে কথা বলতে চাই”। এর পরই ফোনের লাইন কেটে যায়। মায়ের সঙ্গে আর কথা বলা হয়নি খাদিজার।

এখন পর্যন্ত ব্রিটেনের অন্তত ৮০০ নাগরিক আইএস-এ যোগ দিতে সিরিয়া পাড়ি জমিয়েছেন। এর মধ্যে অন্তত ২৫০ জন ফিরে এসেছেন। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে এবং নজরদারির মধ্যে রাখা হয়েছে।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/এমএইচ/টিএম

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ [email protected]

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।