ব্রেকিং নিউজ :
September 1, 2016

নিউইয়র্কে ১৭ দিনের ব্যবধানে আরেক বাংলাদেশি খুন

NRB_News_pic_of_Nazma_Khanamযুক্তরাষ্ট্রের নিউইয়র্কে ইমাম হত্যার ঘটনার ১৭ দিনের ব্যবধানে অকারণে প্রাণ গেলো আরেক বাংলাদেশির। দুর্বৃত্তের ছুরিকাঘাতে প্রাণ গেল এই বাংলাদেশি নারীর। বুধবার স্থানীয় সময় রাত সোয়া ৯টায় সিটির কুইন্সে জ্যামাইকা হিলস এলাকায় ৬০ বছর বয়সী নাজমাখানমকে ছুরিকাঘাতে নিষ্ঠুর ভাবে  খুন করা হয়।  নিহত নাজমা খানমের ৩ সন্তান। তার এক সন্তান নিউইয়র্কে এবং অপর দুজন থাকেন বাংলাদেশে।

কর্মস্থল থেকে বাসায় ফেরার সময় নিজ বাসার ব্লকের মধ্যে ১৬০-১২ নরম্যাল রোডে নাজমা খানমকে হত্যা করা হয়।  তার কিছুটা পেছনেই হাঁটছিলেন তার স্বামী।  “আমাকে মেরে ফেললো, বাঁচাও-বাঁচাও” নাজমা খানমের এমন আর্তচিৎকারে তার স্বামী দৌড়ে কাছে আসেন। কিন্তু এর আগেই দুর্বৃত্ত পালিয়ে যায়। তার স্বামী কাছে এসে দেখতে পান যে, বুক থেকে রক্ত গড়াচ্ছে। সাথে সাথে পুলিশকে ফোন করেন। দ্রুত অ্যাম্বুলেন্সসহ পুলিশ এসে নাজমা খানকে নিকটস্থ জ্যামাইকা হাসপাতালের জরুরি বিভাগে নেয়ার পর চিকিৎসকরা তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

সংবাদে জানা গেছে, নিউইয়র্ক মুসলিম পুলিশ অফিসার এসোসিয়েশনের সদস্য মোহাম্মদ কবিরের খালা নাজমা খানম। তার এই মৃত্যুর ঘটনায় ঘাতককে খুঁজতে ইতোমধ্যে মাঠে নেমেছে পুলিশ।

এদিকে নাজমা খানমের আরেক মোহাম্মদ রহমান দাবি করেন, “তার খালাকে ধর্মীয় বিদ্বেষমূলকভাবে হত্যা করা হয়েছে। এটিও হেইট ক্রাইম। কারণ তিনি মুসলিম পোশাকে হাঁটছিলেন। এছাড়া তার কাছে থেকে কিছুই নেয়নি দুর্বৃত্তটি।”

তদন্ত কর্মকর্তারা অবশ্য তা স্বীকার করেননি। তারা বলেছেন, এক্ষুণি হেইট ক্রাইম হিসেবে অভিহিত করার মত কিছুই উদঘাটিত হয়নি।

গত ১৩ আগস্ট এই এলাকার কাছে ওজনপার্কে গুলি করে হত্যা করা হয় বাংলাদেশি ইমাম মাওলানা আলাউদ্দিন আকঞ্জি এবং তার সাথী তারা মিয়াকে। ওই হত্যা মামলায় ৩৫ বছর বয়সী অস্কার মরেল নামক এক হিসপ্যানিককে গ্রেফতার করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত ইমামসহ দুই বাংলাদেশিকে হত্যার ঘটনাকেও ‘হেইট ক্রাইম’ হিসেবে উল্লেখ করা হয়নি। এ নিয়ে প্রবাসী বাংলাদেশিসহ মুসলিম আমেরিকানরা ক্ষুব্ধ। তারা প্রবাসীদের নিরাপত্তায় যথাযথ পদক্ষেপ গ্রহণের দাবি জানাচ্ছেন।

বাংলাদেশ২৪অনলাইন/এমএইচ/টিএম

একই রকম সংবাদ

সম্পাদকঃ আলী অাহমদ
যোগাযোগঃ ১৪৮/১, গ্রীণ ওয়ে, নয়াটোলা, মগবাজার, ঢাকা-১০০০
ফোনঃ ০১৭৯৪৪৪৯৯৯৭-৮
ইমেইলঃ [email protected]

Copyrıght Bangladesh24online @ 2015.               এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি ।